Monday, October 14, 2019
Home > অান্তর্জাতিক > তুরস্কে জরুরি অবস্থা প্রত্যাহার

তুরস্কে জরুরি অবস্থা প্রত্যাহার

ডেস্ক রিপোর্ট :
ঢাকা, ১৯ জুলাই : ব্যর্থ সেনা অভ্যুত্থানের জের ধরে জারি থাকা দুই বছরের জরুরি অবস্থা প্রত্যাহার করে নিয়েছে তুরস্কের সরকার। এ সময়ের মধ্যে লাখো মানুষকে গ্রেপ্তার অথবা চাকরিচ্যুত করা হয়।
বৃহস্পতিবার সংবাদমাধ্যমগুলো জানায়, এত দিন প্রতি তিন মাস অন্তর জরুরি অবস্থার মেয়াদ বাড়ানো হচ্ছিল।
সম্প্রতি তুরস্কের নির্বাচনে জয়লাভ করেন প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান। এরপর জরুরি অবস্থা প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নেয়া হলো।
নির্বাচনী প্রচারাভিযানের সময় বিরোধী পক্ষের প্রার্থীরা অঙ্গীকার করেছিলেন, ক্ষমতায় গেলে প্রথমেই তারা জরুরি অবস্থার সমাপ্তি টানবেন।
জরুরি অবস্থা জারির পর থেকে এক লাখ সাত হাজারের বেশি কর্মকর্তা-কর্মচারীকে সরকারি চাকরি থেকে বহিষ্কার করা হয়। এ ছাড়া সরকারি ও বেসরকারি হিসাবে ৫০ হাজার মানুষকে কারাবন্দি করে রাখা হয়েছে।
চাকরিচ্যুত ও কারাবন্দি অনেকেই দেশটির নির্বাসিত ইসলামিক নেতা ফেতুল্লাহ গুলেনের সমর্থক। গুলেন যুক্তরাষ্ট্রে বসবাস করেন। তিনি এরদোগানের একসময়ের মিত্র।
তুরস্কের সরকারের অভিযোগ, গুলেন সেনা অভ্যুত্থানের চেষ্টা করেছেন। তবে তিনি তা অস্বীকার করেছেন।
২০১৬ সালে সেনা অভ্যুত্থানের চেষ্টার সময় সামরিক উড়োজাহাজ থেকে পার্লামেন্ট ভবনে বোমা হামলা চালানো হয়। সে সময় ২৫০ জনের বেশি নিহত হন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *