Wednesday, April 24, 2019
Home > বিনোদন > ‘অ্যালবামের চলটাও থাকা উচিত’: তাশরিন নদী

‘অ্যালবামের চলটাও থাকা উচিত’: তাশরিন নদী

বিনোদন ডেস্ক : চ্যানেল আই সেরাকণ্ঠ সংগীত প্রতিযোগিতা থেকে উঠে আসা প্রতিযোগীদের মধ্যে যে ক’জন শিল্পী এরইমধ্যে সংগীতে ভালো অবস্থান তৈরি করেছেন তাদের মধ্যে মৌমিতা তাশরিন নদী অন্যতম। এ প্রতিযোগিতার পর বেশ কিছু মৌলিক গান উপহার দিয়েছেন এ শিল্পী, যেসব বেশ শ্রোতাপ্রিয়তাও পেয়েছে। এসবের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো বাপ্পা মজুমদারের সঙ্গে নদীর গাওয়া ‘জলছায়া’, আসিফ আকবরের সঙ্গে ‘আজ হারাই’, তারেক এএফএমের সঙ্গে ‘মুগ্ধতা’, একক কণ্ঠে ‘ডুবসাঁতার’, ‘দেশি গার্ল’সহ আরো বেশ কিছু গান। নদী খুব অল্প কিন্তু ভালো মানের কাজে বিশ্বাসী। আর এ কারণেই গড্ডলিকা প্রবাহে গা ভাসাতে রাজি নন তিনি। বর্তমানে নিজের নতুন একক অ্যালবামের কাজ করছেন। পাশাপাশি স্টেজ শো ও টিভি অনুষ্ঠান করছেন খুব বেছে বেছে। সব মিলিয়ে কেমন চলছে দিনকাল? নদী বলেন, বেশ।
গান ও পড়াশোনা নিয়ে ভালোই কাটছে সময়। চলতি সময়টা তাই খুব উপভোগ করছি। এখনকার ব্যস্ততা কি নিয়ে? নদী বলেন, অল্প অল্প করে কিছু নতুন গান করা হয়েছে। এ গানগুলো সামনে প্রকাশ হবে। তাছাড়া নতুন গানের বাইরে স্টেজ শো ও টিভি অনুষ্ঠান নিয়েও ব্যস্ততা যাচ্ছে। আর ভক্ত-শ্রোতাদের জন্য একটি নতুন খবরও আছে। কী খবর? নদী উত্তরে খুব আত্মবিশ্বাসের সুরে বলেন, নতুন একক অ্যালবামের কাজ শুরু করেছি। এরইমধ্যে রেকর্ডিংও শুরু হয়েছে। নিজের মতো করে এ অ্যালবামের কাজ গোছাচ্ছি। অ্যালবামটির কাজ করছেন কারা? নদী উত্তরে বলেন, এ অ্যালবামে থাকবে ৪ থেকে ৫টি গান। হয়তো বাড়তেও পারে সংখ্যা। গানগুলোর সুর ও সংগীত করছেন জেকে মজলিশ। আর নিজের স্টাইলেই কিছু মনের মতো গান করার চেষ্টা করছি।
আমার বিশ্বাস গানগুলো ভালো লাগবে সবার। কবে নাগাদ প্রকাশ হবে এই অ্যালবাম? নদী উত্তরে হেসে বলেন, আমি কচ্ছপ গতিতে চলতে পছন্দ করি। বেশি একটা তাড়াহুড়া নেই আমার মাঝে। তাই সেভাবেই ধীরে সুস্থে গানগুলোর কাজ গুছাচ্ছি। যখন মনে হবে গানগুলো শতভাগ মনের মতো করে রেকর্ডিং শেষ হয়েছে তখন প্রকাশের চিন্তা করবো। এখন শুধু গানগুলো যেন ভালো হয় সেদিকে মনোযোগ দিচ্ছি। প্ল্লেব্যাক কিংবা সিঙ্গেল কি করা হচ্ছে? নদী বলেন, প্ল্লেব্যাক ও সিঙ্গেলও করছি। তবে আমার মনে হয় অ্যালবামে কয়েকটি গান থাকে। সেখানে শিল্পী হিসেবে নিজেকে মেলে ধরার সুযোগ থাকে। গানের ক্ষেত্রে এক্সপেরিমেন্ট করার সুযোগ থাকে। কিন্তু সিঙ্গেলে সেটা থাকে না। এ কারণেই অ্যালবাম করছি। আর সিনেমার গানে ভালো প্রস্তাব থাকলে করছি। তাছাড়া সিঙ্গেলও করছি মনের মতো হলে। নজরুল সংগীতের একটা অ্যালবামওতো করার কথা ছিল? নদী বলেন, হ্যাঁ। সেটার কাজও চলছে। তবে বেশ ধীরে। এ অ্যালবামটি আমার কাছে খুব দামি। তাই এটা নিয়ে একেবারেই তাড়াহুড়া নেই। এটাও সামনে প্রকাশ করবো। বর্তমানে মিউজিক ইন্ডাস্ট্রির অবস্থা কেমন মনে হচ্ছে? নদী বলেন, এখনতো অবস্থা বেশ ভালো। কারণ কোম্পানিগুলো ভালো গানে বিনিয়োগ করছে। তাছাড়া নিজের কাছে স্বত্ব রেখেও গান প্রকাশ করা যাচ্ছে। যে যার ইচ্ছেমতো স্বাধীনভাবে গান করতে পারছে। তবে ডিজিটালি গান প্রকাশ হচ্ছে এখন। এ ধারায় অভ্যস্ত হলে আরও ভালো দিকে যাবে অবস্থা। আর একটি কথা। সিঙ্গেলের পাশাপাশি অ্যালবামের চলটাও থাকা উচিত বলে আমি মনে করি। কারণ সেখানে একজন শিল্পী নানাভাবে নিজেকে মেলে ধরতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *