Monday, October 14, 2019
Home > অান্তর্জাতিক > জাতির উদ্দেশে নরেন্দ্র মোদি’র ভাষণ, কাশ্মিরে ব্যাপক উন্নয়নের প্রতিশ্রুতি

জাতির উদ্দেশে নরেন্দ্র মোদি’র ভাষণ, কাশ্মিরে ব্যাপক উন্নয়নের প্রতিশ্রুতি

এপিপি বাাংলা ডেস্ক : সায়ত্ত শাসন বাতিল করে কাশ্মিরকে দুটি আলাদা অঞ্চলে ভাগ করার পর উদ্ভূত পরিস্থিতিতে জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ওই ভাষণে তিনি কাশ্মিরি জনগণকে আশ্বস্ত করেছেন দীর্ঘ সময় ধরে কেন্দ্রের শাসনে থাকবে না জম্মু কাশ্মির। এই ইস্যুতে সরকারের নেওয়া সিদ্ধান্ত সেখানকার জনগণের জীবনে ইতিবাচক পরিবর্তন আনবে বলেও মত দেন তিনি। ব্যাপক অর্থনৈতিক পরিবর্তনের আশ্বাস দিয়ে মোদি বলেন, রাজনৈতিকভাবে খুব বেশি কিছু বদলাবে না। নির্বাচনের মাধ্যমে এমএলএ বেছে নেওয়া যাবে আর আগের মতো মুখ্যমন্ত্রীও থাকবে বলে জানান ভারতের প্রধানমন্ত্রী।
গত ২৭ মার্চ ভারতের নির্বাচনের মধ্যে সর্বশেষ জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ওই ভাষণে স্যাটেলাইট বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র ছোঁড়ায় সফলতার ঘোষণা দেন তিনি। গত সোমবার (৫ আগস্ট) ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিলের মধ্য দিয়ে কাশ্মিরের স্বায়ত্তশাসনের অধিকার কেড়ে নেওয়া হয়। এদিকে জম্মু-কাশ্মিরকে ভেঙে দুইটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে পরিণত করতে পার্লামেন্টে একটি বিলও পাস করা হয়েছে। তারমধ্যে একটি জম্মু-কাশ্মির এবং অপরটি হবে লাদাখ। এই পদক্ষেপকে কেন্দ্র করে কাশ্মিরজুড়ে মোতায়েন করা হয়েছে অতিরিক্ত সেনা। গ্রেফতার করা হয়েছে সেখানকার শতাধিক স্থানীয় নেতাকে। ইন্টারনেট-মোবাইল পরিষেবা বন্ধ রাখা হয়েছে। বিরাজ করছে থমথমে পরিস্থিতি। আর এ অচলাবস্থার মধ্যে বৃহস্পতিবার জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিলেন প্রধানমন্ত্রী।
রেডিও, টেলিভিশনে এক যোগে সম্প্ররাচিত ভাষণে কেন্দ্রীয় সরকারের সিদ্ধান্তকে ঐতিহাসিক আখ্যা দেন নরেন্দ্র মোদি। সংবিধানের ৩৭০ ধারা কাশ্মিরি জনগণকে স্বজনপ্রীতি, সন্ত্রাসবাদ ও বিভক্তি ছাড়া কিছুই দেয়নি বলে মন্তব্য করেন তিনি। এই ধারার কারণে গত কয়েক দশকে রাজ্যের ৪২ হাজার নিরীহ মানুষকে হত্যা করা হয়েছে বলেও দাবি করেন তিনি। সংবিধানের ওই ধারা বাতিলের মধ্য দিয়ে কাশ্মির ও ভারতীয় জনগণের নতুন যুগের শুরু হবে বলে দাবি করেন মোদি। সব নাগরিকের সমানাধিকার ও দায়িত্ব থাকবে বলেও জানান তিনি।
মোদি বলেন, আমরা সবাই চাই আগামী কয়েক দিনের মধ্যে জম্মু কাশ্মির বিধানসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে, নতুন সরকার গঠন হবে নতুন মুখ্যমন্ত্রী নির্বাচিত হবেন। আমি কাশ্মিরি জনগনকে আশ্বস্ত করতে চাই যে আপনারা খুবই দায়িত্ববান। স্বচ্ছ পরিবেশে নিজেদের প্রতিনিধি বেছে নেওয়ার সুযোগ পাবেন আপনারা।
ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী বলেন, আপনারা জেনে অবাক হবে যে দশকের পর দশক ধরে কাশ্মিরে এরকম হাজার হাজার সহদর রয়েছেন যাদের কারো হয়তো শুধু লোকসভা নির্বাচনে ভোটের অধিকার রয়েছে। কিন্তু এখন থেকে তারা বিধানসভা ও স্থানীয় নির্বাচনেও ভোট দিতে পারবেন। দেশ বিভগের পর পাকিস্তান থেকে ভারতে আসা এসব মানুষদের ওপর এই অবিচার আর কতদিন চলতে পারে?
নরেন্দ্র মোদি বলেন, দশকের পর দশক পারিবারিক শাসনের কারণে জম্মু কাশ্মিরের তরুণেরা নেতৃত্ব দেওয়ার সুযোগ পায়নি। এখন তরুণেরা নেতৃত্ব দিয়ে কাশ্মিরের উন্নয়নকে নতুন উচ্চতায় নিয়ে যাবে। আমি তরুণদের জম্মু কাশ্মিরের বোন ও কন্যাদের নিজ ভূমির উন্নয়নের দায়িত্ব নেওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি।
কাশ্মিরের পণ্য বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে যাবে বলে মন্তব্য করেন মোদি। লাদাখকে কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলে পরিণত করার পর সেখানকার মানুষের উন্নয়ন ঘটানো ভারত সরকারের বিশেষ দায়িত্ব। স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, লাদাখ ও কারগিলের উন্নয়ন কাউন্সিলের সহায়তায় কেন্দ্রীয় সরকার দ্রুত গতিতে উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নের মাধ্যমে সবাই সুবিধা পাবে। মোদি বলেন, আধ্যাত্ম পর্যটন ও অ্যাডভেঞ্চার পর্যটন ও ইকোট্যুরিজমের সর্ববৃহৎ কেন্দ্র হয়ে ওঠার সম্ভাবনা রয়েছে লাদাখের। সৌর জ্বালানির অন্যতম কেন্দ্র হওয়ারও সম্ভাবনা রয়েছে লাদাখের। এসব সম্ভাবনা এখন কাজে লাগানো হবে বলে জানান তিনি।
৪০ মিনিটের এই ভাষণে জম্মু কাশ্মিরের সব শুন্য পদ পূরণের মাধ্যমে চাকরির সুযোগ নিশ্চিতের আহ্বান জানান নরেন্দ্র মোদি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *