Monday, October 14, 2019
Home > অান্তর্জাতিক > মুসলিম নির্যাতনের প্রতিবাদ করায় সৌমিত্র-অপর্ণার বিরুদ্ধে দেশদ্রোহের মামলায় নিন্দার ঝড়

মুসলিম নির্যাতনের প্রতিবাদ করায় সৌমিত্র-অপর্ণার বিরুদ্ধে দেশদ্রোহের মামলায় নিন্দার ঝড়

এপিপি বাংলা : ‘গো রক্ষার’ নামে মুসলিমদের নির্যাতন বন্ধের দাবিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বরাবর চিঠি দেয়ায় অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় ও অপর্ণা সেনের বিরুদ্ধে দেশদ্রোহের অভিযোগে মামলার পর দুই বাংলায়ই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিন্দা ও প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে।

চলচ্চিত্রের এই দুই বরেণ্য তারকার বিরুদ্ধে দেশদ্রোহের মামলা করায় তার ভক্তরা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। ভক্তরা বলছেন, গো রক্ষার নামে ভারতে মুসলিমদের ওপর যা চলছে তা মানবতারিবোধী অপরাধ। এর প্রতিবাদ ধর্মবর্ণ নির্বিশেষে প্রতিটা মানুষের করা উচিত। আর এ জন্য রাষ্ট্রদ্রোগের মামলা হয় কীভাবে? তারা এ মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান।

শনিবার বিহার আদালতে মামলাটি করেছেন সুধীর কুমার ওঝা নামের একজন আইনজীবী। ভারতজুড়ে ধর্মীয় অসহিষ্ণুতা ও গণপিটুনি বন্ধের দাবিতে এবং ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি তুলে সাম্প্রদায়িক উসকানিমূলক বার্তা ছড়ানোর প্রতিবাদে দেশের ৪৯ জন বরেণ্য ব্যক্তিত্ব প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বরাবর চিঠি দেন। এরপর তা নিয়ে দেশজুড়ে তোলপাড় শুরু হয়।

চলচ্চিত্রের এই দুই বরেণ্য তারকার পাশাপাশি দেশের ৪৯ জন বিশিষ্ট ব্যক্তির বিরুদ্ধে দেশদ্রোহের অভিযোগ আনা হয়। এই তালিকায় আরও রয়েছেন- শ্যাম বেনেগাল, অনুরাগ কাশ্যপ, মণিরত্নম।

সুধীর কুমার ওঝার অভিযোগ, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির উন্নয়নে ব্যাঘাত ঘটানো এবং বহির্বিশ্বে দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করার চেষ্টা করেছেন এই ৪৯ জন নাগরিক। তিনি এই মামলায় সাক্ষী হিসেবে কঙ্গনা রনৌত, মধুর ভান্ডারকর, বিবেক অগ্নিহোত্রীর নাম উল্লেখ করেছেন। আদালত আগামী ৩ আগস্ট মামলার শুনানির দিন ধার্য করেছেন।

প্রসঙ্গত সম্প্রতি গো রক্ষার নামে ভারতের গণপিটুনির ঘটনা বেড়ে গেছে। এতে উদ্বেগ প্রকাশ করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে চিঠি দিয়েছেন দেশটির ৪৯ বিশিষ্টজন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *