Wednesday, November 13, 2019
Home > বিনোদন > মায়াবতী দৌলতদিয়া যৌনপল্লীর মানুষকে ডেডিটেক করা উচিত — তিশা

মায়াবতী দৌলতদিয়া যৌনপল্লীর মানুষকে ডেডিটেক করা উচিত — তিশা

মনিরুল ইসলাম : নুশরাত ইমরোজ তিশা। জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেত্রী। তার ঘরে রয়েছে অসংখ্য পুরস্কার। যা তিনি অভিনয় শৈলি দিয়ে অর্জন করেছেন। তিশা গুনী নির্মাতা অরুন চৌধুরী পরিচালিত ‘ মায়াবতী’ ছবির নায়িকা। মায়া চরিত্রে নাম ভূমিকায় অভিনয় করেছেন।

মায়াবতী আগামী ১৩ সেপ্টেম্বর মুক্তি পাবে। পরিবেশনার দায়িত্ব পালন করছে জাজ মাল্টি মিডিয়া। আজকে পর্যন্ত ২৫ টি সিনেমা হলে ছবিটির বুকিং সম্পন্ন হয়েছে বলে জাজ সূত্রে জানাগেছে।

গতকাল সোমবার রাতে বাংলামটরস্থ ওয়াটার ফল রেষ্টোরেন্টে ছবি মুক্তি উপলক্ষ্যে আয়োজন করা হয় মায়াবতী আড্ডা। এই আড্ডার এক ফাঁকে ছবির নায়িকা তিশা সাথে আলাপচারিতা চলে। তিশা ছবিটি নিয়ে তার কথা তুলে ধরেন। বলেন নানান কথা।

কথার এক ফাঁকে বলেন, এই ছবির বড় একটি অংশের শুটিং হয়েছে দৌলতদিয়া যৌনপল্লীতে। সেখানকার মানুষেরা আমাদের অনেক সহযোগিতা করেছেন। আমাদের সাথে কষ্ট করেছেন। তাই মায়াবতী তাদের জন্য ডেডিকেট করা উচিত বলে আমি মনে করি।

আলাপকালে মায়াবতী নিয়ে তিশা বলেন, পৃথিবীর প্রত্যেক মানুষের ‘না’ বলার অধিকার রয়েছে। না বলা শিখা উচিত। আর না বলাকে সকলের সম্মান করা দরকার। আর এই মেসেজটা নিয়েই অরুণ চৌধুরী ‘মায়াবতী’ সিনেমাটি নির্মাণ করেছেন।

তিশা বলেন, অনেক প্রতিবন্ধকতার মধ্যেও নির্মাতারা সিনেমা নির্মাণ করেন শুধুমাত্র দর্শকদের জন্যই। দর্শক যখন প্রেক্ষাগৃহে সপরিবারে সিনেমা দেখতে আসেন, তখনই আসলে আমাদের পরিশ্রম সার্থক হয়। আর নির্মাতারা সিনেমা বানাতে সাহস পান।

এ প্রসঙ্গে তিশা বলেন, আমি শুধু মায়াবতী নিয়ে নয়। দর্শকদের বলতে চাই, ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির যত সিনেমা মুক্তি পাচ্ছে আমি সবগুলোর জন্যই একই কথা বলছি। আপনারা হলে গিয়ে দেশী ছবি দেখুন। ভালো হলে অন্যদের দেখতে উৎসাহিত করুন। ভালো না লাগলেও ইতিবাচক সমালোচনা করুন। যাতে আমাদের ছবির জয় হয়।

তিশা কাজের অভিজ্ঞতার কথা বলতে গিয়ে বলেন, নির্মাতা অরুণ চৌধুরী অনেক পরিশ্রম করেছেন। দারুণ একটি ছবি বানিয়েছেন। দর্শকরা সেটা দেখলেই বুঝবেন। আমার বিশ্বাস দর্শকরা ঠকবেন না। ছবিতে রোমাঞ্চ, প্রেম-ভালোবাসা রয়েছে। ছবির ৬টি গানও সুন্দর। রোমান্টিক। গল্পটি চমৎকার। ছবিতে একটি মেসেজও রয়েছে।
তিশা আরো বলেন, মায়াবতীর টিজার, ট্রেলর ও একটি সং রিলিজের পর যে সাড়া পেয়েছি আমি আশাবাদী ছবিটি দর্শকরা হলে গিয়ে দেখবেন সপরিবারে।

দর্শকদের কাছে কি প্রত্যাশা এমন প্রশ্নে জবাবে তিশা বলেন, আমাদের দেশে এখন অনেক ভালো ভালো চলচ্চিত্র নির্মাণ হচ্ছে। আপনারা সিনেমা হলে আসলে। দেশের সিনেমার পাশে থাকলে। আমারা আরও ভালো ভালো ছবি উপহার দিতে পারবো। ঢালিউড আরো সমৃদ্ধ হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *