Thursday, May 28, 2020
Home > বিশেষ সংবাদ > গণহত্যার কথা স্বীকার করতে সু চিকে ৭ নোবেলজয়ীর আহ্বান

গণহত্যার কথা স্বীকার করতে সু চিকে ৭ নোবেলজয়ীর আহ্বান

এপিপি বাংলা :  মিয়ানমারের রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে গণহত্যাসহ বিভিন্ন অপরাধ প্রকাশ্যে স্বীকার করে নিতে অং সান সু চির প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন শান্তিতে নোবেলজয়ী সাত ব্যক্তিত্ব। সোমবার এক বিবৃতিতে এই আহ্বান জানান ওই সাত নোবেলজয়ী।

তারা বলেন, আমরা শান্তিতে নোবেলজয়ী হিসেবে শান্তিতে নোবেল পাওয়া সু চিকে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে গণহত্যাসহ বিভিন্ন অপরাধ প্রকাশ্যে স্বীকার করে নিতে আহ্বান জানাচ্ছি। আমরা গভীর উদ্বেগের সঙ্গে জানাচ্ছি যে, এসব অপরাধের নিন্দা না করে উল্টো এ ধরনের নৃশংসতা ঘটার কথাই অস্বীকার করছেন অং সান সু চি।

ওই সাত নোবেলজয়ী এমন সময় সু চির প্রতি এই আহ্বান জানালেন যখন রোহিঙ্গা গণহত্যার মামলায় আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে আজ থেকে তিনদিনের শুনানি শুরু হচ্ছে। ওই শুনানিতে মিয়ানমারের পক্ষে সাফাই দিতে দ্য হেগে পৌঁছেছেন দেশটির রাষ্ট্রীয় উপদেষ্টা সু চি।

রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে গণহত্যায় মিয়ানমারকে দায়ী করার জন্য গাম্বিয়ার এই পদক্ষেপের আমরা প্রশংসা করছি। আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে গাম্বিয়া ওই অভিযোগ দায়ের করার কয়েকদিন আগে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত জানায় তারা রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে সংঘটিত অপরাধ খতিয়ে দেখবে।

একইসঙ্গে যেসব অপরাধ সংঘটিত হয়েছে সেগুলোর জন্য অং সান সু চিসহ সেনাবাহিনীর কমান্ডারদের জবাবদিহিতার আওতায় আনারও আহ্বান জানিয়েছে ওই সাত নোবেলজয়ী।

ওই বিবৃতিতে স্বাক্ষরকারী শান্তিতে সাত নোবেলজয়ী হচ্ছেন- ইরানের শিরিন ইবাদি, লাইবেরিয়ার লেমাহ গবোই, ইয়েমেনের তাওয়াক্কুল কার্মান, উত্তর আয়ারল্যান্ডের মাইরেড মাগুয়ের, গুয়েতেমালার রিগোবার্টা মেনচ তুম, যুক্তরাষ্ট্রের জোডি উইলিয়ামস ও ভারতের কৈলাশ সত্যার্থী।

উল্লেখ্য, রাখাইনে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর অত্যাচারের মুখে ২০১৭ সালের আগস্টে প্রায় সাড়ে সাত লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে আসে। এরও আগে থেকে কয়েক ধাপে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয় চার লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা। রাখাইনে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর অভিযানকে ‘জাতিগত নিধন’ বলে বর্ণনা করেছে জাতিসংঘ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *