Tuesday, March 2, 2021
Home > জাতীয় সংবাদ > শহীদ দিবসে রাজধানীর যেসব রোড বন্ধ ও খোলা থাকবে

শহীদ দিবসে রাজধানীর যেসব রোড বন্ধ ও খোলা থাকবে

এপিপি বাংলা: মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস যথাযথ ও সুশৃঙ্খলভাবে উদযাপনের জন্য ২০ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যা ৬টা থেকে ২১ ফেব্রুয়ারি দুপুর ২টা পর্যন্ত জনসাধারণের চলাচল ও সব ধরনের যানবাহন নিয়ন্ত্রণে পথনির্দেশিকা দিয়েছে ডিএমপি।

বৃহস্পতিবার পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে তারা জানায়, পলাশী ক্রসিং, এসএম হল এবং জগন্নাথ হলের সামনের রাস্তা দিয়ে শহীদ মিনারে প্রবেশের অনুরোধ করা হলো। কোনোভাবেই অন্য রাস্তা ব্যবহার করে শহীদ মিনারে প্রবেশ করা যাবে না। শহীদ মিনার থেকে বের হতে দোয়েল চত্বরের দিকের রাস্তা অথবা ঢাকা মেডিকেল কলেজের সামনের রাস্তা ব্যবহার করতে হবে। প্রবেশের রাস্তা দিয়ে বের হওয়া যাবে না।

যেসব রাস্তা বন্ধ থাকবে: বকশীবাজার-জগন্নাথহল ক্রসিং সড়ক, চাঁনখারপুল-রোমানা চত্বর ক্রসিং সড়ক, টিএসসি-শিববাড়ী মোড় ক্রসিং, উপাচার্য ভবন-ভাস্কর্য ক্রসিং (ফুলার রোড)।

ডাইভারশন ব্যবস্থা: ১৯ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যা ছয়টা থেকে ২০ ফেব্রুয়ারি সকাল ১০টা পর্যন্ত রাস্তায় আলপনা আঁকতে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের আশপাশের রাস্তা বন্ধ থাকবে। এ সময় শিববাড়ী, জগন্নাথ হল ও রোমানা চত্বর ক্রসিংগুলোতে গাড়ি ডাইভারশন দেওয়া হবে।

২০ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যা ছয়টা থেকে ২১ ফেব্রুয়ারি দুপুর দুইটা পর্যন্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকার যেখানে-সেখানে অনুপ্রবেশ বন্ধে নীলক্ষেত, পলাশী মোড়, ফুলার রোড, বকশীবাজার, চাঁনখারপুর, শহিদুল্লাহ হল, দোয়েল চত্বর, জিমনেশিয়াম, রোমানা চত্বর, হাইকোর্ট, টিএসসি, শাহবাগ ইন্টারসেকশনগুলোতে রোড ব্লক দিয়ে গাড়ি ডাইভারশন দেওয়া হবে।

২১ ফেব্রুয়ারি ভোর পাঁচটা থেকে সাইন্সল্যাব থেকে নিউমার্কেট ক্রসিং, কাঁটাবন ক্রসিং থেকে নীলক্ষেত ক্রসিং এবং ফুলবাড়িয়া ক্রসিং থেকে চাঁনখারপুল ক্রসিং পর্যন্ত প্রভাতফেরি উপলক্ষে সব ধরেনর যাত্রীবাহী গাড়ী প্রবেশ নিষিদ্ধ থাকবে।

গাড়ি পার্কিং ব্যবস্থা: একুশের প্রথম প্রহরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জিমনেশিয়াম মাঠে ভিআইপি গাড়ি পার্কিংয়ের ব্যবস্থা থাকবে। সম্মানিত নাগরিকরা নীলক্ষেত-পলাশী, পলাশী-ঢাকেশ্বরী সড়কে তাদের গাড়ি পার্কিং করতে পারবেন। সাধারণ নির্দেশনাবলী: করোনা মহামারি কারণে কবরস্থান এবং শহীদ মিনারে শ্রদ্ধার্ঘ ও পুষ্পস্তবক অর্পণে আগ্রহীদের মাস্ক পরতে হবে।

যারা কবরস্থান এবং শহীদ মিনারে শ্রদ্ধার্ঘ ও পুষ্পস্তবক অর্পণ করতে যাবেন, অন্যদের অসুবিধার কথা বিবেচনায় তাদের রাস্তায় বসা বা দাঁড়ানো থেকে বিরত থাকতে বলা হয়েছে। সর্বসাধারণের চলাচলের সুবিধার জন্য উল্লেখিত রাস্তায় রাস্তায় কোনো ধরনের প্যান্ডেল তৈরি না করার অনুরোধ করা হয়েছে।

শহীদ মিনারে প্রবেশে আর্চওয়ের মাধ্যমে তল্লাশির মাধ্যমে প্রবেশ করতে হবে। সবাইকে সারিবদ্ধভাবে প্রবেশের অনুরোধ জানানো হয়েছে।

এ ছাড়া শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে প্রচারকৃত নির্দেশনা সবাইকে মেনে চলার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে। কোনো ধরণের ব্যাগ সঙ্গে না নেওয়া এবং যে কোনো পুলিশি প্রয়োজনে শহীদ মিনার এলাকায় স্থাপিত অস্থায়ী পুলিশ কন্ট্রোল রুমে যোগাযোগের অনুরোধ জানানো হয়।

Like & Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *