Sunday, September 19, 2021
Home > আঞ্চলিক সংবাদ > নলছিটিতে কলেজছাত্রকে পিটিয়ে হত্যা

নলছিটিতে কলেজছাত্রকে পিটিয়ে হত্যা

নিজস্ব প্রতিনিধি :
ঝালকাঠি, ২১ নভেম্বর : ঝালকাঠির নলছিটিতে এক কলেজছাত্রকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। আজ বুধবার বেলা ১১টায় নলছিটি সরকারি ডিগ্রি কলেজে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ জড়িত সন্দেহে একজনকে আটক করেছে। পুলিশ বলছে, সে ছাত্রলীগের কর্মী।
নিহত শিক্ষার্থীর নাম রাকিব হোসেন (১৭)। সে ওই কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্র ও পৌরসভার নান্দিকাঠি এলাকার রিকশাচালক মাসুম হোসেনের ছেলে। আটক তরুণের নাম কাওছার হোসেন সালমান। সে পৌর এলাকার হাসপাতাল সড়কের জাকির হোসেনের ছেলে।
এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, রাকিবের সঙ্গে একই কলেজের একাদশ শ্রেণির এক ছাত্রীর প্রেমের সম্পর্ক ছিল। কিন্তু নাফিউল নামে আরেক বহিরাগত যুবক ওই ছাত্রীর সঙ্গে সম্পর্ক গড়তে চায়। এ নিয়ে রাকিব আর নাফিউলের মধ্যে দ্বন্দ্ব সৃষ্টি হয়। এর জেরে গত সোমবার রাকিবকে কলেজে মারধর করা হয়। তবে ওই দিন বিকেলে বিষয়টির মীমাংসা করে দেন কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মো. রফিকুল ইসলাম কবির ও কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি প্রিন্স মাহমুদ বাবু।
পুলিশ, এলাকাবাসী ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, বুধবার সকালে রাকিব হোসেন কলেজে প্রাইভেট পড়তে গেলে নাফিউল ও তার সহযোগীরা তাকে আবার মারধর করে। এ সময় বাধা দিতে গেলে সাকিব নামে রাকিব হোসেনের এক সহপাঠীকেও মারধর হয়। একপর্যায়ে নাফিউল তার হাতে থাকা ক্রিকেটের স্টাম্প দিয়ে পেছন দিক থেকে রাকিব হোসেনের মাথায় আঘাত করে। এতে রাকিব মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। পরে স্থানীয় লোকজন রাকিবকে প্রথমে নলছিটি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। পরে সেখান থেকে বরিশালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।
পরিবারের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, রাকিব হোসেন নিয়মিত এলাকায় থাকত না। সে ঢাকায় পোশাক শ্রমিক হিসেবে কাজ করত। সামনে পরীক্ষা থাকায় সে গত শুক্রবার এলাকায় ফেরে।
কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মো. রফিকুল ইসলাম কবির বলেন, কলেজের মাঠে ঘটনাটি আকস্মিক ঘটেছে। সোমবার যে ছেলেকে মারধর করা হয়েছে নিহত ছেলে সে–ই কি না, তা তিনি এখনো নিশ্চিত হতে পারেননি।
নলছিটি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাখাওয়াত হোসেন বলেন, হত্যাকা-ে জড়িত সন্দেহে ছাত্রলীগের কর্মী কাওছার হোসেন সালমানকে আটক করা হয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ঝালকাঠি সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত বাকিদের আটকে অভিযান চলছে। এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

Like & Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *