Sunday, December 5, 2021
Home > আন্তর্জাতিক > এনআরসি হলে মুখ্যমন্ত্রীত্ব হারাবো: ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী

এনআরসি হলে মুখ্যমন্ত্রীত্ব হারাবো: ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী

এপিপি বাংলা : ভারতের বিতর্কিত জাতীয় নাগরিক পঞ্জিকা (এনআরসি) নিয়ে ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেবের একটি মন্তব্য সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হচ্ছে।

একটি ভিডিওতে মুখ্যমন্ত্রী বলছেন, আমি যদি এটি আমার রাজ্যে বাস্তবায়ন করি…আমার আত্মীয়-স্বজন, আমার বাবা বাংলাদেশ থেকে এসেছেন। আমার বাবা এখানে এসে তার নাগরিকত্ব কার্ড পেয়েছিলেন…তারপর আমার জন্ম ত্রিপুরায়। সুতরাং এনআরসির জন্য যদি কারও ক্ষতি হয়, তাহলে প্রথমে আমিও মুখ্যমন্ত্রীত্ব হারাবো। আমি কি বোকা যে মুখ্যমন্ত্রীত্ব হারানোর জন্য এনআরসি বাস্তবায়ন করতে দেবো?’

তার করা এ মন্তব্য ফেসবুক, টুইটারসহ বিভিন্ন ধরনের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রীর এমন মন্তব্যের ভিডিওটি মুহূর্তের মধ্যেই ভাইরাল হয়ে যায়। এটি নেটিজেনরাও নানা ধরনের মন্তব্য করছেন। অনেকেই তার মন্তব্যের সমালোচনা করলেও তার পাশে দাড়িয়ে কেউ কেউ বলছেন, তিনি নিরাপদে থাকবেন। কারণ দেশটির সরকার নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলটি নিয়ে পর্যালোচনা করছে।

পশ্চিমবঙ্গের উত্তর দিনাজপুর জেলার রায়গঞ্জ ও কালিয়াগঞ্জের উপনির্বাচনে প্রচারে গিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। সেখানেই তিনি এই মন্তব্য করেছেন।

আমরা রাত হলে ঘরের দরজা বন্ধ করে দিই, যেখানে কারো প্রবেশের ক্ষমতা নেই। আর সে স্থানে রাষ্ট্র তো এমন হতে পারে না যে যে কেউ চাইলেই চলে আসতে পারে বলেন মুখ্যমন্ত্রী। মুখ্যমন্ত্রীর মিডিয়া উপদেষ্টা সঞ্জয় মিশ্র জানিয়েছেন, মুখ্যমন্ত্রীর ভিডিওটি নিয়ে নোংরা রাজনীতি করা হচ্ছে। তবে পুরো ভিডিওটি দেখলে বোঝা যাবে বিপ্লব দেব এনআরসি এবং নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের পক্ষেই নিয়েই মন্তব্য করেছেন।

তবে এই ভিডিওটির সত্যতা যাচাইয়ের জন্য মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেবের কার্যালয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে দেশটির ইংরেজি দৈনিক ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস। পত্রিকাটি জানিয়েছে পুরো ভিডিওতে বিপ্লব কুমার দেবকে বলতে শোনা যায়, অবৈধ অভিবাসী, বিদেশি অনুপ্রবেশকারী, চোর এবং ডাকাতদের থেকে ভারতীয়দের রক্ষা করাই এনআরসি এবং নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের লক্ষ্য।

Like & Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *