Monday, September 27, 2021
Home > জাতীয় সংবাদ > বিদেশ থেকে দেশে ফিরলে ঘরে থাকার পরামর্শ

বিদেশ থেকে দেশে ফিরলে ঘরে থাকার পরামর্শ

এপিপি বাংলা : বিশ্বের অর্ধশতাধিক দেশে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ায় বাংলাদেশে সংক্রমণ এড়াতে এসব দেশ থেকে কেউ উপসর্গ না নিয়ে ফিরলেও কয়েকদিন ঘরে থাকার পরামর্শ দিয়েছে রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইডিসিআর)।

আজ রোববার করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতি নিয়ে আইইডিসিআরের নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে এই পরামর্শ দেন প্রতিষ্ঠানের পরিচালক অধ্যাপক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা।

এখন পর্যন্ত বিশ্বের ৫৪ দেশে করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগী ধরা পড়ার তথ্য জানিয়ে সেব্রিনা ফ্লোরা বলেন, ‘এখন পর্যন্ত আমাদের এখানে কোনো করোনাভাইরাস সংক্রমণ হয়নি।

আমরা জানি, কেউ যদি আক্রান্ত হয়, তাহলে সংক্রমিত কোনো দেশ থেকেই সেটা আসবে বলে আশঙ্কা করছি। তাই সেসব দেশ থেকে ফিরলেও তারা যেন হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকেন। খুব প্রয়োজন না হলে বাড়ির বাইরে বের না হন।’

বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত ৮৮টি নমুনা পরীক্ষা করে কারও মধ্যে এই রোগের জীবাণু পাওয়া না গেলেও সতর্ক থাকার ওপর জোর দিচ্ছে আইইডিসিআর। কারণ, যেখানে করোনাভাইরাস সংক্রমণ ঘটেছে, সেখানেই দ্রুত তা ছড়িয়ে পড়ছে।

ডা. ফ্লোরা বলেন, ‘এজন্য আমরা সবাইকে পরামর্শ দিচ্ছি, যারা বাইরে থেকে আসবেন, তারা বিমানবন্দর থেকে বাসায় যাওয়ার পথে গাড়িতে মাস্ক ব্যবহার করবেন। সম্ভব হলে গণপরিবহনে না গিয়ে নিজস্ব যানবাহনে যাবেন, এ সময় পরিবহনের জানালা খোলা রাখবেন না।’

আইইডিসিআরের পরিচালক বলেন, ‘আমরা অনুরোধ করছি, আপনারা আবশ্যিকভাবে বাড়িতে অবস্থান করুন। জনসমাগম এড়িয়ে চলুন। যদি বাইরে যাওয়া খুবই দরকার হয়, তাহলে মাস্ক ব্যবহার করবেন।’

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে কেউ এলে বিমানবন্দরে স্ক্রিনিংয়ের মাধ্যমেই তাকে শনাক্ত করে চিকিৎসা দেওয়ার প্রস্তুতি রাখা হয়েছে বলে জানান আইইডিসিআর পরিচালক। এ ছাড়া বিদেশ থেকে আসা কারও মধ্যে কোনো লক্ষণ দেখা দিলে আইইডিসিআরের হটলাইনে যোগাযোগের পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

বাংলাদেশে নভেল করোনাভাইরাস সংক্রমণ না ঘটলেও সিঙ্গাপুরে পাঁচ বাংলাদেশি এবং আরব আমিরাতে একজন বাংলাদেশি কভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত হয়েছেন।

ডা. ফ্লোরা জানান, সিঙ্গাপুরের হাসপাতালে ভর্তি থাকা পাঁচজনের মধ্যে দুজন সুস্থ হয়ে বাসায় ফিরেছেন। আরও দুজন সুস্থ হয়ে বাসায় ফেরার অপেক্ষায় আছেন। আরেকজন এখনো সঙ্কটাপন্ন অবস্থায় হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

Like & Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *