Friday, May 14, 2021
Home > আন্তর্জাতিক > বাংলায় সাম্প্রদায়িকতার বিষ ছড়াতে দেব না: মমতা

বাংলায় সাম্প্রদায়িকতার বিষ ছড়াতে দেব না: মমতা

এপিপি বাংলা : বিজেপির উদ্দেশে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, বাংলাকে সাম্প্রদায়িকতার বিষে বিষাক্ত করা যাবে না। বহিরাগত গুন্ডাদের দিয়ে বাংলা দখল করা যাবে না। এই রাজ্য রাজা রামমোহন রায়, ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর, স্বামী বিবেকানন্দ, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, কাজী নজরুল ইসলামের। এই বাংলা বিশ্ব সংস্কৃতি ও সভ্যতার কেন্দ্র। এখানে সাম্প্রদায়িকতার বিষ ছড়াতে দেব না।

রোববার নিউজ এইটিন বাংলাকে দেওয়া একান্ত সাক্ষাৎকারে এসব কথা বলেন মমতা।

এদিকে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বলেছেন, দিদিকে (মমতা) ২ মে হেঁটে রাজ্যপালের কাছে গিয়ে পদত্যাগপত্র জমা দিতে হবে। প্রস্তুত হয়ে যান।

সাক্ষাৎকারে করোনা মোকাবিলায় ব্যর্থতার জন্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কড়া সমালোচনা করেছেন মমতা। তিনি বলেছেন, টিকা নিয়ে মোদির অব্যবস্থাপনার জন্যই ভারতে করোনার আজ এই অবস্থা। অথচ অমিত শাহ বাংলায় এসে পড়ে আছেন। নির্বাচন কমিশনকে বলেছিলাম, ভোটের ধাপ কমিয়ে দিতে। বিজেপির কথায় তা করা হয়নি। এদিকে মতুয়াদের ভোট প্রসঙ্গে সাক্ষাৎকারে মমতা বলেছেন, তারা আমাদেরই ভোট দেবে। তাদের জন্য আমরা অনেক কাজ করেছি।

বিজেপির বিরুদ্ধে ধর্মীয় মেরূকরণের অভিযোগ প্রসঙ্গে এক প্রশ্নের জবাবে মমতা বলেন, গোয়েবলসের থিওরি একবার খাটে, বারবার নয়। মনে রাখবেন, লেবু কচলাতে কচলাতে তেতো হয়ে যায়। বিজেপিরও তাই হবে।

এর আগে রোববার প্রধানমন্ত্রীর কাছে টিকা, ওষুধ ও অপিজেন চেয়ে চিঠি পাঠিয়েছেন মমতা। সেই চিঠিতে কেন্দ্র সরকারের অব্যবস্থাপনারও সমালোচনা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। চিঠিতে রাজ্য ও কলকাতার করোনার চিত্র তুলে ধরে মমতা লিখেছেন, গত ২৪ ফেব্রুয়ারি কেন্দ্রের কাছে অনুমোদন চেয়েছিলেন যে, রাজ্য নিজেদের তহবিল থেকেই বিনা পয়সায় সবাইকে করোনা টিকা দিতে চায়। তবে সেই অনুমোদন পাইনি। তিনি আরও লিখেছেন, রাজনৈতিক স্বার্থচরিতার্থ করার জন্য ভোট প্রচারে রাজ্যে বহুসংখ্যক বহিরাগত এসেছে। তারাই পশ্চিমবঙ্গে করোনা ছড়িয়েছে।

এদিকে পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচনে আট ধাপের মধ্যে পাঁচ ধাপে ১৮০টি আসনের ভোট গ্রহণ হয়েছে। এখনও তিন ধাপে ১১৪ আসনের ভোট গ্রহণ বাকি। ২৯ এপ্রিল অষ্টম ধাপে ভোট নেওয়ার পর আগামী ২ মে একযোগে ফলাফল ঘোষণা করা হবে।

বিজেপি পাঁচ ধাপের ভোটে বড় জয় পেতে চলেছে বলে দাবি করেছেন অমিত শাহ। গতকাল জামালপুরে বিজেপির নির্বাচনী জনসভায় তিনি বলেন, পাঁচ ধাপেই ১২২টির বেশি আসনে জিতবে বিজেপি। এবার দুই শতাধিক আসন পাব আমরা। মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে ইস্তফা দিতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে হেঁটে রাজ্যপালের কাছে যেতে হবে। সেজন্য তার আগেই সুস্থ হয়ে উঠুন দিদি।

অমিত শাহ বলেন, দিদির গুন্ডারা কিছু করতে পারেনি এই পাঁচ ধাপে। তাই দিদি হতাশায় ভুগছেন। কারণ, এখন পর্যন্ত গৃহীত ভোটের দুই-তৃতীয়াংশ বিজেপির দখলে যাবে। অবশ্য অমিত শাহর মতোই প্রধানমন্ত্রী মোদিও বাংলায় বিজেপির জয় নিয়ে ভবিষ্যদ্বাণী করেছেন।

তৃণমূলের সুজাতা ও বিজেপির সায়ন্তুনের প্রচারে নিষেধাজ্ঞা :এবারের নির্বাচনে বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য আলোচনায় রয়েছেন তৃণমূলের সুজাতা মণ্ডল খাঁ ও বিজেপির সায়ন্তুন বসু। রোববার এই দু’জনকে প্রচারে ২৪ ঘণ্টার জন্য নিষিদ্ধ করেছে নির্বাচন কমিশন।

শীতলখুচিতে কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানদের গুলিতে চারজনের মৃত্যুর পর সায়ন্তুন বলেছিলেন, ‘আমি সায়ন্তুন বসু বলছি, বেশি খেলতে যাবেন না। আমরা শীতলখুচিতে খেলা খেলে দিয়েছি।’ আর তপশিলি জাতি নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করায় সুজাতাকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

রাহুল গান্ধীর নির্বাচন কর্মসূচি বাতিল : কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী পশ্চিমবঙ্গে নির্বাচনী কর্মসূচি বাতিল করেছেন। রোববার এক টুইট বার্তায় তিনি বলেছেন, রাজ্যে করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় সব কর্মসূচি বাতিল করা হচ্ছে। একই সঙ্গে অন্য দলের নেতাদেরও করোনা পরিস্থিতি মাথায় রেখে জনসভা না করার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। এ বিষয়ে বিজেপি ও তৃণমূল বড় কোনো ঘোষণা দেয়নি। অবশ্য রোববার মমতা জানিয়েছেন, নির্বাচনী জনসভা ও রোড শো আধা ঘণ্টার মধ্যে শেষ করবে তৃণমূল। তবে করোনা পরিস্থিতিতে নির্বাচনী সভা-সমাবেশ বন্ধ ঘোষণা করেছে সিপিএম। তারা প্রচারের জন্য সরকারি টিভি ও রেডিও ওপরই ভরসা করছে।

Like & Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *