Thursday, July 29, 2021
Home > জাতীয় সংবাদ > ‘বাড়ি যেতে পারলেই খুশি’

‘বাড়ি যেতে পারলেই খুশি’

এপিপি বাংলা : ‘টাকা বেশি লাগে লাগুক। দূরপাল্লার বাস বন্ধ। ভেঙে ভেঙে যেতে হবে। হোক। তারপরও বাড়ি যেতে পারলেই খুশি।’

সোমবার (১০ মে) দুপুরে রাজধানীর আমিনবাজার থেকে কথাগুলো বলছিলেন শফিকুল ইসলাম নামে এক যাত্রী।

শফিকুল ইসলামের বাড়ি বাগেরহাট। ঢাকায় চাকরি করেন। গ্রামের বাড়িতে মা-বাবা, স্ত্রী, সন্তান আছেন। সবার সঙ্গে ঈদ করতে নানা ভোগান্তি উপক্ষো করে বাড়ি যাচ্ছেন তিনি।

শুধু শফিকুল ইসলামই নন, তার মতো শত শত মানুষ নানা ভোগান্তি উপেক্ষা করে করোনা সংক্রমণের এই পরিস্থিতিতেও ঢাকা ছাড়ছেন। এতে সবচেয়ে বেশি ভোগান্তিতে পড়েছেন নিন্ম, মধ্যবিত্ত আয়ের মানুষ।

গাবতলী আমিনবাজার এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, ট্রাক, কাভার্ডভ্যান ও মোটরসাইকেলে করেও যাচ্ছেন অনেকে। খালি ট্রাক ও পিকআপ দেখলেই দৌড়ে যাচ্ছেন অনেকে। হাত উঁচু করছেন থামানোর জন‌্য। স্বাস্থ‌্যবিধি না মেনে একসঙ্গে গাদাগাদি করে বাড়ি ফিরছেন লোকজন।

হাসান শিকদার নামে খুলনার এক যাত্রী বলেন, ‘কঠোর লকডাউন ও ঈদ উপলক্ষে সরকারি-বেসরকারি অফিস বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। তাই কষ্ট হলেও বাড়ি যাচ্ছি  সবার সাথে ঈদ করতে। তবে বাড়িতে যেতে ভোগান্তির পাশাপাশি খরচও হচ্ছে কয়েকগুণ বেশি টাকা। তারপরও যেতে পারলেই আমি খুশি।’

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মুখপাত্র নাজমুল ইসলাম বলেন, ‘ঈদ সামনে রেখে করোনার ঝুঁকি নিয়ে মানুষ ঢাকা থেকে গ্রামে যাচ্ছেন। এতে পথে যে পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে, তা অত্যন্ত উদ্বেগজনক ও আশঙ্কাজনক। এর ফলে ঈদের পরে যেকোনো সময় পরিস্থিতি খারাপের দিকে চলে যেতে পারে।’

Like & Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *